দিল্লি মেট্রোর ম্যাজেন্টা লাইনে চালকবিহীন রেল পরিষেবার উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর - Newsbazar24
দেশ

দিল্লি মেট্রোর ম্যাজেন্টা লাইনে চালকবিহীন রেল পরিষেবার উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

দিল্লি মেট্রোর ম্যাজেন্টা লাইনে চালকবিহীন রেল পরিষেবার উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

Newsbazar 24সোমবার দিল্লি  মেট্রোর ম্যাজেন্টা লাইনে ভারতের প্রথম চালক বিহীন ট্রেন পরিচালন ব্যবস্থা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করলেন  প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী এদিন পতাকা নাড়িয়ে দিল্লির চালকহীন মেট্রো চালু করলেন মোদী। এদিন  দিল্লি মেট্রোর এয়ারপোর্ট এক্সপ্রেস লাইনেও ন্যাশনাল কমন মোবিলিটি কার্ডএর সুযোগ চালু হয়েছে গত বছর আমেদাবাদে এই কার্ডএর ব্যবহার শুরু হয়েছিল এই অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী হরদীপ সিং পুরী এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী শ্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল উপস্থিত ছিলেনপ্রথম পর্যায়ে চালকবিহীন মেট্রো জনকপুরী পশ্চিম থেকে ম্যাজেন্টা লাইনে  নয়ডার বোট্যানিকাল গার্ডেন মেট্রো স্টেশন পর্যন্ত চলবে যা পরবর্তীকালে বাড়ানো হবে

এই উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজকের এই বিষয়টিকে নগরোন্নয়নের ক্ষেত্রে সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার একটি উদ্যোগ বলে বর্ণনা করেছেন তিনি বলেছেন, ভবিষ্যতের চাহিদার সঙ্গে দেশ প্রস্তুত হচ্ছে, যা প্রশাসনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দায়িত্ব যখন নগরায়নের চাহিদা অনুভূত হচ্ছিল, তখন কয়েক দশক আগেও বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়নি বলে শ্রী মোদী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সেই সময়ের কাজগুলি আন্তরিক ছিল না এবং বিভ্রান্তিকর বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আধুনিক চিন্তাভাবনায় নগরায়নকে চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখা হয় না, বরং দেশের উন্নত পরিকাঠামো গড়ে তোলার একটি সুযোগ হিসাবে এগুলিকে কাজে লাগানো হয় এর মাধ্যমে আমরা সহজ জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন ঘটাতে পারি তিনি বলেছেন, নগরায়নের প্রতিটি ক্ষেত্রে এখন নানাভাবে চিন্তাভাবনা চলছে ২০১৪ সালে দেশের মাত্র ৫টি শহরে মেট্রো রেল পরিষেবা ছিল, যা এখন বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১৮ ২০২৫ সালের মধ্যে ২৫টিরও বেশি শহরে মেট্রো পরিষেবা শুরু করা হবে ২০১৪ সালে দেশে মাত্র ২৪৮ কিলোমিটার মেট্রো রেলের লাইন ছিল আজ তা প্রায় তিন গুণ বৃদ্ধি পেয়ে ৭০০ কিলোমিটারেরও বেশি হয়েছে ২০২৫ সালের মধ্যে এই পরিমাণ হাজার ৭০০ কিলোমিটার করার পরিকল্পনা করা হয়েছে তিনি বলেছেন, এগুলি শুধুমাত্র সংখ্যার হিসাব নয়, এর মাধ্যমে কোটি কোটি ভারতবাসীর সহজ জীবনযাত্রার প্রমাণ পাওয়া যায় এগুলি ইঁট, কাঠ, পাথর লোহা দিয়ে তৈরি পরিকাঠামোই শুধু নয়, এগুলি দেশের মধ্যবিত্ত শ্রেণী সহ সারা দেশের মানুষের চাহিদা পূরণের উদাহরণ

প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের মেট্রো রেলের কাজের তালিকা অনুষ্ঠানে তুলে ধরেছেন তিনি বলেছেন, দিল্লি মীরাটের মধ্যে রিজিওনাল র্যা পিড ট্রানজিট সিস্টেম (আরআরটিএস) – এর মাধ্যমে দিল্লি মীরাটের মধ্যে দূরত্ব ঘন্টারও কম হবে যেসব শহরে যাত্রী সংখ্যা কম হবে, সেখানে মেট্রোলাইট পরিষেবার ব্যবস্থা করা হছে মেট্রোলাইট নির্মাণে সাধারণ মেট্রোর ৪০ শতাংশ অর্থ ব্যয় হয় শ্রী মোদী আরও জানিয়েছেন, যেসব শহরে কম মেট্রো চলাচল করবে, সেখানে মেট্রোনিও নির্মাণ করা হচ্ছেযেটি নির্মাণে সাধারণ মেট্রোর মাত্র ২৫ শতাংশ অর্থ ব্যয় হয় একইভাবে, ওয়াটার মেট্রো নিয়েও চিন্তাভাবনা চলছে যেসব শহরে বড় বড় জলাশয় রয়েছে, সেখানে ওয়াটার মেট্রো গড়ে তোলা হচ্ছে এর ফলে, দ্বীপভূমির মানুষদের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও ভালোভাবে গড়ে উঠবে

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, চালক বিহীন মেট্রো রেলের ক্ষমতা অর্জনের ফলে বিশ্বে গুটিকয় দেশের সঙ্গে ভারতও এই তালিকায় যুক্ত তিনি জানান, ট্রেনে ব্রেক ব্যবস্থা প্রয়োগের সময় উৎপাদিত ৫০ শতাংশ শক্তি বর্তমানে গ্রিডে ফেরত চলে যায় আজ মেট্রো পরিষেবায় ১৩০ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুতের ব্যবহার হচ্ছে এবং এটি ভবিষ্যতে বৃদ্ধি পেয়ে ৬০০ মেগাওয়াট হবে।

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news