একই পদ্ধতিতে করা চা খেয়ে মুখে অরুচি ? এবার স্বাদবদল করেই ফেলুন বাড়ির ‘’ চা ‘’-এ - Newsbazar24
রান্না ঘর

একই পদ্ধতিতে করা চা খেয়ে মুখে অরুচি ? এবার স্বাদবদল করেই ফেলুন বাড়ির ‘’ চা ‘’-এ

একই পদ্ধতিতে করা চা খেয়ে মুখে অরুচি ? এবার স্বাদবদল করেই ফেলুন বাড়ির  ‘’   চা ‘’-এ

একই পদ্ধতিতে করা চা খেয়ে মুখে অরুচি ? এবার স্বাদবদল করেই ফেলুন বাড়ির  ‘’

চা ‘’-এ

তমালী ওঝা , অসম

প্রতিদিন সকালে বিকেলে একই পদ্ধতিতে করা চা খেয়ে মুখে অরুচি ধরে যাওয়া স্বাভাবিক।  এবার স্বাদবদল করেই ফেলুন বাড়ির চায়ে। খুবই সহজ কিছু টিপস রইল এই প্রতিবেদনে, যা বদলে দেবে আপনার নিত্যপ্রয়োজনীয় এই পানীয়ের স্বাদ, একইসঙ্গে করে তুলবে অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর । আপনার জিভের কোরকেও পাবেন তৃপ্তি।

লেবু চা

১। লেবু চা বাঙালিজীবনে খুব পরিচিত এই চা। স্বাদবদলের ইচ্ছে যখন করছেই তখন প্রথমেই যে চায়ের কথা মাথায় আসে, তা লেবু চা। লেবু চা শুধু যে টকভাব আনে তা নয়, বরং লেবুর মধ্যে থাকা ভিটামিন সি আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও সাহায্য করে।

আদা চা


২। আদা চা চায়ের স্বাদবদল করতে আরেকটি যে উপাদান চোখ বুজে বেছে নেওয়া যায়, তা আদা। সর্দি, কাশি বা গলায় কফ জমলে যখন অতিষ্ঠ লাগে, তখন কিন্তু আদা চা-ই ঘরোয়া টোটকা। আদার ঝাঁঝ গলার কফকে দূর করতে সাহায্য করে। এমনকি শরীরের দুর্বলভাবকে দূর করে দেয়। এছাড়া আপনার যদি অম্বল হয়, অথবা পেটের ব্যথায় ভোগেন, আদা চা সেক্ষেত্রেও মোক্ষম সমাধান। চা দিয়ে জল ফোটানোর পর আদা কুচি ঢেলে দিন ফুটন্ত চায়ে। এরপর ছেঁকে সেই চা খান। এতে স্বাদবদল আর শরীরের উপকার দুই-ই হয়।

পুদিনা চা


৩। পুদিনা চা পুদিনার স্বাদের সঙ্গে প্রায় সবাই পরিচিত। পুদিনা চা তেমনই স্বাদের চা। সকালের চায়ে পুদিনা থাকলে আপনি পাবেন নতুন স্বাদ। এর দারুণ স্বাদ আপনাকে প্রতিদিনের কাজের জন্য প্রয়োজনীয় এনার্জি দেবে। যাঁরা পেট গরমের সমস্যায় ভোগেন, তাঁদের জন্য দারুণ সমাধান হল পুদিনা চা‌। এটি নিমেষে পেট গরম কমিয়ে আপনাকে চাঙ্গা করে তোলে। শরীরের ভিতরকার ব্যথা সারাতে পুদিনা চায়ের গুরুত্ব অনেক।

মধু চা


৪। মধু চা মধু একাই একশোরকম গুণ ধারণ করে। সেই মধু চায়ে মেশালে চায়ের গুণ যে আরও বাড়বে তা বলাই বাহুল্য। মধু শরীরের মেটাবলিজম বাড়াতে সাহায্য করে। এতে আপনার রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পায়। মধু চা খেলে আপনি এই উপকারগুলি পাবেন। আপনার সর্দি কশির ধাত থাকলে সেক্ষেত্রেও সমান উপকারে আসবে এই চা। এছাড়াও মধু শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট ঝরাতে সাহায্য করে। ফলে যাঁরা গ্রিন টি খেতে অভ্যস্ত, তাঁরা বেছে নিতে পারেন মধু চা। স্বাদবদলের জন্য তাই চোখ বুজে বেছে নিন মধু চা, যা আপনার শরীরের জন্যও অনেক উপকারী।

দারুচিনি চা


৫। দারুচিনি চা দারুচিনির চায়ের স্বাদ কিন্তু অতুলনীয়। চায়ের কষাটেভাব দারুচিনি মেশালে চলে গিয়ে একরকম মশলাদার স্বাদ হয় চায়ের। দারুচিনি মধু , আদার মতোই সর্দি কাশি হলে খেতে পারেন। এটি বুকে জমে থাকা কফকে দূর করে দেয়। গরম জলে কিছুক্ষণ দারুচিনির টুকরো রেখে চা মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। এই চা খেলে আপনার কাশিও দূর হয়ে যাবে। ডায়েবেটিস পেশেন্টদের জন্য খুবই উপকারী এই চা। মেডিকেল সায়েন্স বলছে প্রতিদিন যদি এক গ্ৰাম মত দারুচিনি রুটিনে রাখা যায়, তবে হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়া সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকে। চায়ের সঙ্গে তাই মিশিয়ে খেতে পারেন দারুচিনি। হজমের সমস্যায় যদি ভোগেন দীর্ঘকাল, তাদের জন্যও এই একই চা অত্যন্ত উপকারী। দারুচিনি খাবার হজম করাতে সাহায্য করে। শরীরের ব্যথা উপশমেও এই চাগুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। স্বাদবদল করতে এখন থেকে ঘরে বসেই আপনি আপনার পছন্দের চা বানিয়ে নিতে পারেন। উপরের সবকটি চা-ই যেমন আপনার চা-কে নতুন মাত্রা তেমনই আপনার শরীরের প্রতিরোশক্তি বাড়ায়, পাশাপাশি রোগমুক্তও রাখে। তবে আর দেরি কেন ? আজ থেকেই বানিয়ে ফেলুন বিভিন্ন রকমের চা ।

NewsDesk - 1

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news